• শিরোনাম

    কুমিল্লায় কোচিং সেন্টার বন্ধে মাঠে প্রশাসন

    অনলাইন ডেস্ক : | মঙ্গলবার, ০৩ এপ্রিল ২০১৮

    কুমিল্লায় কোচিং সেন্টার বন্ধে মাঠে প্রশাসন

    সরকারি নীতিমালা অমান্য করে কুমিল্লায় জমজমাট হয়ে ওঠেছে কোচিং সেন্টারের নামে শিক্ষা বাণিজ্য। এসব কোচিং সেন্টার বন্ধে মাঠে নেমেছে ভ্রাম্যমান আদালত। রবিবার নগরীর বিভিন্ন কোচিং সেন্টারগুলোতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

    এসময় সংশ্লিষ্ট কোচিং সেন্টার থেকে আর্থিক জরিমানা আদায় করা হয় এবং কোচিং সেন্টার বন্ধে সংশ্লিষ্ট পরিচালক ও ভবনের মালিকদের সতর্ক করা হয়।

    জানা যায়, কুমিল্লা নগরীর খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠান এবং অভিজাত এলাকা ঘিরে সরকারি নীতিমালা অমান্য করে একের পর এক কোচিং সেন্টার গড়ে ওঠেছে। শিক্ষার্থীরাও কাশে না গিয়ে কোচিং নির্ভর লেখাপড়ায় ঝুঁকে পড়ছে। এসব বন্ধে ২০১২ সালে নীতিমালা করা হলেও কেউই এর তোয়াক্কা না করে কোচিংয়ের নামে শিক্ষাকে বাণিজ্যের দিকে ধাবিত করছে।

    এসব কোচিং সেন্টার বন্ধে রবিবার দুপুরে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না মাহমুদ ও কানিজ আফরোজের নেতৃত্বে নগরীর বাদুরতলা, তালপুকুরপাড়, নজরুল এভিনিউ ও ঠাকুরপাড়া এলাকায় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

    এসময় সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে কোচিং সেন্টার পরিচালনা করায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে আর্থিক জরিমানা আদায় করা হয়। এদিকে রবিবার বিকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাবুল সূত্রধর ও ফজলে এলাহীর নেতৃত্বেও পৃথকভাবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

    ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না মাহমুদ জানান, গত ২৯ মার্চ সরকারি এক পরিপত্রের মাধ্যমে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়।

    এ নির্দেশনা অমান্য করে কোচিং সেন্টার পরিচালনা করায় নগরীর বেশ কয়েকটি কোচিং সেন্টারকে জরিমানা করা হয়েছে এবং কোচিং সেন্টার বন্ধে সতর্ক করা হয়েছে। অভিযান চলাকালে বেশ কয়েকটি কোচিং সেন্টার বন্ধ পাওয়া গেছে। কোচিং সেন্টারগুলোর প্রতি প্রশাসন জিরো টলারেন্স দেখাবে এবং এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে onusondhanbd24.com