অাপসহীন সত্যান্বেষী
  • শিরোনাম

    কুমিল্লা ময়নামতিতে সাংবাদিকের বাড়ীতে দূর্ধর্ষ চুরি! কেয়ারটেকার কে খুজছে পুলিশ

    মাহফুজ বাবু, কুমিল্লা | শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭

    কুমিল্লা ময়নামতিতে সাংবাদিকের বাড়ীতে দূর্ধর্ষ চুরি! কেয়ারটেকার কে খুজছে পুলিশ

    কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি শাহদৌলতপুর গ্রামে গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)-এর সিনিয়র রিপোর্টার (আইন) এড. মো. দিদারুল আলম দিদারের কুমিল্লার ময়নামতি গ্রামের বাড়ীতে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে।

    ২৯ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার  রাতের কোন এক সময়ে তার গ্রামের বাড়ীতে থাকা গরু ও গাভী খামারের ৩টি বাছুরসহ দুধেল ৩টি গাভী ও অন্য আরো দু’টিসহ মোট ৮টি গরু, ২টি মোটর সাইকেল ও ঘরের অন্যান্য মূল্যবান জিনিস চোরেরা নিয়ে যায়।

    সরেজমিন দেখা যায়, গোয়াল ঘরের তালা ভেঙ্গে সবকটি গরু চোরেরা নিয়ে যায়। তালাবদ্ধ অপর একটি ঘরের তালা ভেঙ্গে পালসার ব্র্যান্ডের একটি, উত্তরা মোটর্স’এর একটিসহ মোট ২টি মোটর সাইকেল এবং ওই ঘরের মূল্যবান অন্যনা আসবাবপত্রও নিয়ে যায়।
    স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনসার্জ ইন্সপেক্টর মনজুর কাদের ভূঁইয়া চুরির ঘটনা অবহিত হওয়ার পরপরই সাব-ইন্সপেক্টর সফিকের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে ফোর্স প্রেরণ করেন। পুলিশ চুরির রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা করছে ।

    সাংবাদিক দিদার জানায়, তার মা ব্রেইন ষ্ট্রোক করে রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

    গ্রামের বাড়ীতে পর্যাপ্ত লোক না থাকায় বাড়ী ফাকা পেয়ে এবং বাড়ীর কেয়ারটেকার রুবেল তার স্ত্রীসহ চুরির পূর্বে বাড়ী থেকে রহস্যজনক কারনে চলে যাওয়ায় চুরি ঘটনাটি ঘটে। এ বিষয়ে স্থানীয় থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

    আইন-আদালত বিটের রিপোর্টারদের সংগঠন ল’রিপোর্টার্স ফোরামের (এলআরএফ) সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও কুমিল্লা জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ঢাকা (সিজেএডি)’র সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নেতা দিদারুল আলমের বাড়ীতে চুরির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইজে)’র সভাপতি শওকত মাহমুদ, মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) নেতৃবৃন্দ, চট্টগ্রাম বিভাগ সাংবাদিক সমিতি’র সভাপতি সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান খোকন, এলআরএফ সভাপতি সাংবাদিক আশুতোষ সরকারসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

    এর আগে গত মঙ্গলবার একই ইউ পি এলাকা ডাঃ মৃনাল দে এর বাগিলারা গ্রামের বাড়ীতে সন্ধ্যায়দ প্রায় লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা চুরি হয়।

    বুড়িচং উপজেলার গোমতী তীরবর্তী ময়নামতি ইউপি এলাকার বাগিলারা গ্রামের চুরি যেন বেড়েই যাচ্ছে দিন দিন। একমাসে চারটি বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটেছে একই গ্রামে। জানা যায় গত ১৭ই নভেম্বর  বাগিলারা গ্রামের মৃত সুবল কর এর পুত্র শান্তী রঞ্জন কর এর বাড়ীতে,  ৫ ডিসেম্বর  এ একই গ্রামের সুকুমার চন্দ্র দাসের পুত্র দিলিপ চন্দ্র দাসের বাড়ীতে। এ মাসের ১৩ তারিখে মঈনপুর গ্রামের মৃত নরেন্দ্র সূত্রধরের পুত্র সুনিল চন্দ্র সূত্রধরের বাড়ীতে। এবং ১৫ তারিখ  বাগিলারা গ্রামের মৃত বিধোভূষন পালের পুত্র রাজিব চন্দ্র পালের বাড়ীতে, গত ২৫ তারিখ একই গ্রামের মৃত অবনীমোহন পালের পুত্র ডাঃ পংকজ চন্দ্র পালের বাড়ীতে এবং গত ১৮ অক্টোবর হরিণধরা গ্রামের মৃত রেবুতী মোহন দাসের পুত্র উত্তম দাসের বাড়ীতে সহ উল্লেখিত বাড়ীগুলোতে আসবাবপত্র সহ নগত টাকা চুরি হয়।

    স্থানীয় চেয়ারম্যান লালন হায়দার বলেন অপরাধী আমার বাবা হলেও তাকে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবেনা এবং তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

    এই ব্যাপারে স্থানীয় ১নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ আবুল হোসেন বলেন আমি নিজে ব্যাক্তিগত ভাবে চেষ্টা করতেছি অপরাধীদের ধরতে। এবং তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলেও জানায়।

    এছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে বুড়িচং উপজেলার দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশের আওতাধীন এলাকা ময়নামতি ইউ পি, মোকাম ও ভারেল্লা এবং  আশেপাশের এলাকায় চুরি ও ছিনতাই সহ নানা অপকর্ম উল্লেখজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত এক মাসে প্রায় আরো ২০/২২ টি চুরির ঘটনা ঘটলেওচুরিরঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছকেেবল তিন চার জন। সাধারণ জনগন বিষয়টি আইনশৃঙ্খলার অবনতি বলেই মনে করছেন।

    এ বিষয়ে দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশের আই সি ইন্সপেক্টর মঞ্জুর কাদের ভুইয়া বলেন, শীতকাল সাধারণত চুরিদারির মত ঘটনা একটু বৃদ্ধি পায় তুলনামূলক। আর সর্বসাধারণ চুরি হওয়ার পর বেশির ভাগ সময় অভিযোগ করতে অনাগ্রহ দেখায় এ মাসে কিছু চুরির ঘটনা ঘটলেও লিখিত ভাবে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। জনসাধারণ পুলিশ কে সহযোগীতা না করলে অপরাধী সনাক্ত করতে পুলিশকে বেগ পেতে হয়। সকল প্রকার অপরাধ দমনে দেশের শ্রেষ্ঠ কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন (বিপিএম) স্যারের কঠোর নির্দেশনা, পর্যবেক্ষণে এবং সার্বক্ষণিক তদারকিতে এবং বুড়িচং থানার সুযোগ্য  ওসি মনোজ কুমার দে স্যারের তত্ত্বাবধানে দেবপুরী ফাঁড়ী পুলিশ সর্বদা সকল প্রকার অপরাধ দমনে সজাগ রয়েছে।

    তিনি সাধারণ জনগন কে বিভিন্ন অপরাধ ও অপরাধীদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করার অহ্বান জানান।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নীল ছবি যেভাবে তৈরি হয়

    ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে onusondhanbd24.com