• শিরোনাম

    বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির মাঠে নেই নেতাকর্মী

    মাহফুজ আহম্মেদ,কুমিল্লা: | রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

    বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির মাঠে নেই নেতাকর্মী

    দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার কারাদন্ডের পর বিএনপির কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তি ছড়িয়ে পড়েছে। কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয়হীনতা ও অকার্যকর কর্মসূচিতে তৃণমূলে দেখা দিয়েছে হতাশা। বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তিতে স্পষ্ট লক্ষ্য করা গেছে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির মাঠে নেই। খালেদা জিয়ার রায়ের পর ঘোষিত দুই দিনের কর্মসুচিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের আন্দোলনের মাঠে দেখা যায়নি। তার মধ্যে অন্যতম কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপিতে ৭টি উপজেলা নিয়ে ৫টি আসনে এ আসন্ন সংসদ সদস্য নির্বাচনের প্রার্থীর তালিকায় এক ডজন দেখা যায়,কিন্তু খালেদা জিয়ার রায়ের পর ঘোষিত দুই দিনের কর্মসুচিতে নেতাকর্মীদের আন্দোলনের মাঠে নেই।
    কুমিল্লা-১(দাউদকান্দি,মেঘনা) কেন্দ্রীয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশারফ হোসেন এর এলাকায় কোন রকম আন্দোলন কিংবা কর্মসূচিতে দেখা যায়নি বিএনপির নেতাকর্মীদের ।
    কুমিল্লা-২(হোমনা,তিতাস) বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ারের মৃতূর পর এই আসনে নেতৃত্ব শূন্যতায় ভুগছেন। তবে বিএনপি থেকে মনোনয়ন আশায় একাধিক পার্থী থাকলেও আন্দোলনের মাঠে কারোই দেখা মিলেনি ।
    কুমিল্লা-৩(মুরাদনগর)কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা শাহ মোফাজ্জল কায়কোবাদ দীর্ঘ দিন পলাতক আসামী হিসাবে চিহ্নিত হওয়ায় এই আসন তেমন কোনো কর্মসূচি পালন করতে ব্যার্থতার পরিচয় দিয়েছে মুরাদনগর বিএনপির ।
    কুমিল্লা-৪(দেবিদ্বার)দেবিদ্বারে বিএনপির চার বারের সাংসদ ইঞ্জি:মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীর প্রায় ১৮ জন নেতাকর্মীকে খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে জেল হাজতে প্রেরন করে । তবে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আওয়াল খানের অনুসারীরা কোনো আন্দোলন মিছিল মিটিংয়ে দেখা যায় নি । তবে হংকং বিএনপির সভাপতি এই আসনের বর্তমান এমপির চাচা ও বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী এএফএম তারেক মুন্সী ও তার ৩নেতাকর্মীকে গ্রেফতার নিয়ে এই আসনের জনমনে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।
    কুমিল্লা-৭(চান্দিনা )চান্দিনা আসনের বিএনপির সভাপতির মৃতূর পর নেতা শূন্যতায় ভূগছে বিএনপির সমর্থকরা । তাই এই আসনেও বিএনপিকে কোনো প্রকার কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায় নি ।
    তবে দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার কারাদন্ডের পর দুই দিনের কর্মসুচিতে একদিনও তাদেরকে মাঠে দেখা যায়নি। বরং রায়ের আগের দিন অর্থাৎ গত বুধবার থেকেই তিনি কুমিল্লা উত্তর নেতার এলাকা ছেড়ে ঢাকায় অবস্থান করছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে। তৃণমূলের এ গুরুত্বপূর্ণ নেতার এমন ভূমিকায় কর্মিদের মাঝে নান প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে onusondhanbd24.com