• শিরোনাম

    কুমিল্লায় পুলিশের ধরপাকর, শত শত নেতা-কর্মী আত্নগোপনে

    | বুধবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

    কুমিল্লায় পুলিশের ধরপাকর, শত শত নেতা-কর্মী আত্নগোপনে

    আগামীকাল ৮ ফেব্রুয়ারী জিয়া ট্যারিটেবল মামলার ঐতিহাসিক রায় দিবেন আদালত। মামলায় আসামী বেগম খালেদা জিয়া অনেকবার হাজিরা দিয়েছেন। আইন ও আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে আদালতের নির্ধারিত তারিখে হাজিরা দিতে হাজির হন অস্থায়ী আদালত বখশী বাজারে। আর সে মামলার রায় ঘোষনা ৮ ফেব্রুয়ারী। সে রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি সমর্থিত নেতা কর্মীরা যেন দেশে কোন বিশৃঙ্খলা করতে না পারে পুলিশকে সতর্ক থাকার জন্য পুলিশের হাই কমান্ড নির্দেশ প্রদান করেন।
    কুমিল্লার জেলা পর্যায়ের শীর্ষ পর্যায়ের এক নেতা জানান,বেগম জিয়ার রায় ঘোষনা হবে ৮ ফেব্রুয়ারী, রায় যাই হোক আমরা মাথা পেতে নেব। আমরা কোন বিশৃঙ্খলা করবোনা। গণতান্ত্রিক নিয়মে কেন্দ্রের নির্দেশে আন্দোলন করবো। পুলিশ সেই সুযোগকে হাতিয়ার হিসেবে কাজে লাগিয়ে শুরু করেছে গণ গ্রেফতার । বিএনপি সমর্থিত প্রত্যেক নেতা-কর্মীর বাড়িতে রাতে গিয়ে গ্রেফতার করছে এবং যাকে যেখানে পাচ্ছে তালিকা অনুযায়ী তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে। পুলিশকে জিজ্ঞোস করা হলে তাকে কেন আটক করেছেন, তার কিবরুদ্ধে কোন মামলা আছে কিনা, হয় তোবা তার বিরুদ্ধে আদালতের কোন ওয়ারেন্ট আছে কি ? আটক কৃত ব্যক্তির হয়ে পুলিশের কাছে এব্যাপারে জানতে চাইলে পুলিশ কোন সদুত্তর না দিয়ে অনেকেই বলছেন,উপরের নির্দেশে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে জেলা বিএনপির ওই নেতা বলেন,বেগম খালেদা জিয়া এদেশের তিন তিনবারের সাবেক প্রধান মন্ত্রী। আদালতের রায় তার সাঁজা হলে আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করে জামিন নিয়ে আসবো। কিন্তু বেগম জিয়াকে জেলে রেখে বাংলাদেশে একতরফা নির্বাচন হবে না। খালেদা জিয়ার সাথে দেশের সাধারন মানুষ আছে,তার শক্তি দেশের সাধারন জনগণ। আদালত বেগম জিয়ার মামলার যেদিন তারিখ ঘোষনা করেন, সেদিন থেকে গত কয়েকদিন, কুমিল্লা মহানগর অর্ধ্বশতাধিক নেতা-কর্মীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আশপাশের উপজেলাগুলোতে ২’শতাধিক নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার করেই শান্ত হননি। তাদেরকে বিভিন্ন মামলায় জড়ানো হচ্ছে। এবং পুরাতন মামলা দেখিয়ে তাদের গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে বলে দাবী করেন বিএনপি’র তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা। বিএনপি’শ শীর্ষ নেতারা জানিয়েয়েছেন বিএনপি নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে আন্দোলনকে দাবিয়ে রাখা যাবেনা। এদিকে গ্রেফতার আতঙ্কের ভয়ে নগরীর ও কুমিল্লার শত শত নেতা কর্মী আত্নগোপনে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে onusondhanbd24.com